নাগপুরে টি-টোয়েন্টি সিরিজের নির্ধারক ম্যাচে ভারতকে ভরসা দিচ্ছেন যুজবেন্দ্র চাহাল।

নাগপুরে টি-টোয়েন্টি সিরিজের নির্ধারক ম্যাচে ভারতকে ভরসা দিচ্ছেন যুজবেন্দ্র চাহাল।

bangla bangla news Bengali news Sports sports news

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজ? তিনি খেলেননি। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে টি-টোয়েন্টি সিরিজ? নাহ, সেখানেও তাঁকে ভাবা হয়নি। তবে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে টি-টোয়েন্টি সিরিজে শেষ পর্যন্ত টিমে এসেছেন ভারতীয় লেগস্পিনার যুজবেন্দ্র চাহাল। আর ফিরেই নতুন করে শোরগোল ফেলে দিয়েছেন। এখনও পর্যন্ত দু’টো ম‌্যাচ খেলেছেন। আর তাতে তাঁর উইকেট পেয়েছেন তিনটি। গড়-১৭.৩৩। ইকনমি ৬.৫। যা বেশ ভাল। সবচেয়ে বড় কথা, বিপক্ষ ইনিংসের মাঝের ওভারগুলিতে ভারত নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারছে চাহালের লেগস্পিনের জন‌্যই।

নাগপুরে টি-টোয়েন্টি সিরিজের নির্ধারক ম্যাচে ভারতকে ভরসা দিচ্ছেন যুজবেন্দ্র চাহাল।

রবিবার নাগপুরে টি-টোয়েন্টি সিরিজ নির্ধারক ম‌্যাচ। কোনও সন্দেহ নেই, সেখানে চাহাল বড় ফ‌্যাক্টর হতে যাচ্ছেন। ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা বলেও দিয়েছেন, ‘টি-টোয়েন্টি সিরিজে আমাদের যে সব বোলারা খেলছে, সবাই নতুন। কিন্তু, চাহাল থাকায় ব‌্যাপারটা অন‌্যরকম হয়ে গিয়েছে। গত দু’বছর ধরে ধারাবাহিক পারফর্ম করে যাচ্ছে চাহাল। ওয়ান ডে, টি-টোয়েন্টি সর্বত্র ও ভাল করেছে। আইপিএল দেখুন, সেখানে চাহাল সফল। আইপিএলে ভাল করার পরই ওকে জাতীয় দলে নেওয়া হয়। আর জাতীয় দলে ঢোকার পর থেকে চাহাল কিন্তু টিমের গুরুত্বপূর্ণ সদস‌্য হয়ে গিয়েছে। আর এই সিরিজে বোঝাচ্ছে, মাঝের ওভারগুলোয় ওর বোলিং কতটা গুরুত্বপূর্ণ।’

রোহিতের মতে, ব‌্যাটসম‌্যানকে বুদ্ধির যুদ্ধে হারিয়ে দেওয়ার যে গুণ আছে চাহালের, সেটাই তাঁকে বারবার জিতিয়ে দেয়। রাজকোট টি-টোয়েন্টিতে দু’টো গুরুত্বপূর্ণ উইকেট নেন চাহাল। নয়াদিল্লি টি-টোয়েন্টিতে দুর্ধর্ষ খেলা মুশফিকুর রহিম আর সৌম‌্য সরকারকে তিনি তুলে নেন। যা বাংলাদেশের স্কোরিং রেটকে এক ঝটকায় অনেকটা নামিয়ে দেয়।

‘চাহাল আসলে জানে ও কী করতে চায়। সঙ্গে এটাও জানে ব‌্যাটসম‌্যান কী করতে চাইছে। চাহাল আসলে সব সময় খেলাটার আগে থাকতে চায়, চায় ব‌্যাটসম‌্যানের আগে থাকতে। যে কারণে ব‌্যাটসম‌্যানদের পক্ষে ওকে খেলাটা কঠিন হয়ে যায় একটু। ব‌্যাটসম‌্যান কী করতে চায় না চায়, খুব ভাল জানে ও। প্লাস ওর স্কিল আছে। বৈচিত্র আছে। আর টি-টোয়েন্টিতে এত কিছু যদি কোনও বোলারের থাকে, তা হলে সে সফল হবেই,’ বলে দিয়েছেন রোহিত।

পাশাপাশি সপ্রশংস ভাবে ভারত অধিনায়ক জুড়ে দিয়েছেন, ‘তার উপর চাহাল একেবারে ভয় পায় না। পাওয়ার প্লে-তে ওকে দিয়ে বল করা যায়। আবার ইনিংসের শেষ দিকেও আনা যায়। আমি তো ১৮ নম্বর ওভারে ওকে ব‌্যবহার করলাম। যথেষ্ট ভাল করল। টিমের ব‌্যালান্সটাই পালটা যায় ওর জন‌্য।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *