বিজেপিকে উচিত শিক্ষা দিয়েছেন মানুষ: শিবসেনা

bangla bangla news Bengali news National
আগামী বছর লোকসভা নির্বাচন। তার আগে বিরাট ধাক্কা খেল অবস্থা মোদী সরকার। মঙ্গলবার ৫ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফলে হাসি ফুটেছে কংগ্রেসের মুখে। রামমন্দির এবং হিন্দুত্ব নিয়ে এত বড়াই সত্ত্বেও রাজস্থান এবং ছত্তীসগঢ় হাতছাড়া হল বিজেপির। আর ভোটের ফলাফল সামনে আসার পরই বিজেপিকে নিয়ে শুরু হয়েছে তুমুল সমলোচনা। বিরোধীরা তো সেই তালিকায় রয়েইছেন, তবে এ ব্যাপারে সবচেয়ে এগিয়ে মহারাষ্ট্র এবং কেন্দ্রে তাদের শরিকদল শিবসেনা।

বিজেপিকে উচিত শিক্ষা দিয়েছেন মানুষ: শিবসেনা

দলের মুখপাত্র এবং রাজ্যসভার সাংসদ সঞ্জয় রাউত এ দিন বলেন, ‘‘বিজেপির কাজকর্ম নিয়ে সত্যি দুশ্চিন্তায় ছিলাম। সতর্কও করেছিলাম ওদের। কিন্তু তা কানে তোলেনি ওরা। তাই সাধারণ মানুষ উচিত শিক্ষা দিয়েছেন ওদের। অকালি দল এবং আমরা ছাড়া এই মুহূর্তে কেউ নেই ওদের পাশে। আমরাও শুধুমাত্র মর্যাদা রক্ষা করে চলেছি। ভোটের ফলাফলে ছবিটা একেবারে স্পষ্ট। এ বার নিজেদের ভুল ত্রুটিগুলির দিকে নজর দেওয়া জরুরি।’’

বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেস যে ভাল ফল করেছে তা মেনেছেন রাউত। কিন্তু এটা কংগ্রেসের জয় বলে মানতে নারাজ তিনি। তঁর যুক্তি,  ‘‘এটাকে কংগ্রেসের জয় বলব না। মানুষের মনে ক্ষোভ জমেছিল। ভোটের ফলাফল তাঁদেরই অভিব্যক্তি। বিজেপির জয়ের রথ আটকে দিয়েছেন তাঁরাই।’’

মহারাষ্ট্র এবং কেন্দ্রে যদিও একে অপরের শরিক বিজেপি এবং শিবসেনা, তবে তাদের মধ্যে বনিবনা নেই অনেক বিষয়েই। ২০১৬ সালে মোদী সরকার নোটবন্দীর ঘোষণা করলে তার তীব্র সমালোচনা করে শিবসেনা। আগামী বছর লোকসভা নির্বাচনের আগে আবার রামমন্দির নিয়ে বিজেপির উপর চাপ সৃষ্টি করতে শুরু করেছে তারা। গত মাসে তা নিয়ে অযোধ্যায় সভাও করে এসেছেন শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *