বব-কাট সেঙ্গামালম তার নাম! হেয়ার-কাট-এর জন্য জনপ্রিয় হচ্ছে এই হাতি

National


নিজস্ব প্রতিবেদন- তামিলনাড়ুর মান্নারগুডিতে শ্রী রাজাগোপালস্বামী মন্দিরে গেলেই তার দেখা মিলবে। অনেকেই মন্দিরে এসে তাকে দেখে হেসে কুটোপাটি খান। ছবি তোলেন, ভিডিয়ো তোলেন অনেকেই। এভাবেই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে সেঙ্গামালম। সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে যার নাম এখন বব-কাট সেঙ্গামালম। হাতির এমন হেয়ারকাট আপনি আগে দেখেছেন কি না সন্দেহ! বন বিভাগের অফিসার সুধা রামেন এই মিষ্টি দেখতে হাতির ছবি শেয়ার করেছিলেন। তার পর থেকেই সেঙ্গামালমের ছবি ভাইরাল হয়েছে। তার হেয়ার কাট সবাই দারুণ পছন্দ করছেন। ইতিমধ্যে সেঙ্গামালমের ফ্যান ক্লাব তৈরি হয়েছে। বুঝতে পারছেন জনপ্রিয়তা কোথায় পৌঁছেছে!

মাহুত এস রাজাগোপাল দেখাশোনা করে সেঙ্গামালমের। সারাদিনের পরিচর্যার মধ্যে সেঙ্গামালমের চুল আচড়ে দেওয়া রয়েছে। রামেনের সেই ছবির দৌলতে সেঙ্গামালম সম্পর্কে লোকে জানার সুযোগ পায়। সবার আগ্রহের জায়গা একটাই। সেঙ্গামালমের হেয়ার-কাট। টুইটারে সেঙ্গামালমের ছবি ৩০ হাজার লাইক কুড়িয়েছে। পাঁচ হাজার রিটুইট হয়েছে। একজন লিখেছেন, কী মিষ্টি দেখতে ওকে! আমরা ওকে সামনে থেকে দেখেছি। ওর হেয়ার-কাট দেখে যে কারও চোখ জুড়িয়ে যাবে। অনেকে আবার লিখেছেন, কেন এমন মিষ্টি হাতিকে মন্দিরে রেখে শোপিস-এর মতো সবাইকে দেখানো হচ্ছে! তাতে কেউ কেউ জবাব দিয়েছেন, সেঙ্গামালমকে মোটেও শোপিস হিসাবে দেখানো হচ্ছে না। ওকে যত্নে রাখা হয়। এমনকী ওি মন্দিরে হাতির পুজোও করা হয়। 

আরও পড়ুন- বাবাকে পথে বসাল ছেলের গেম-এর নেশা! কিনল লাখ-লাখ টাকার ভার্চুয়াল গোলা-গুলি

জানা গিয়েছে, বছর দুয়েক ধরে ওই মন্দিরে থাকে সেঙ্গামালম। ফেব্রুয়ারি মাসে ডিএমকে এমএলএ টিআরবি রাজা এই মিষ্টি দেখতে হাতির কয়েকটি ছবি ও ভিডিয়ো শেয়ার করেছিলেন। তিনি জানিয়েছিলেন, সেঙ্গামালক মন্দির চত্বরে মনের সুখে ঘুরে বেড়ায়। ওকে কখনও কোথাও আটকে রাখা হয় না। যে কোনও জায়গায় যাওয়ার স্বাধীনতা রয়েছে সেঙ্গামালমের।





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *