জেলায় জেলায় শোকজ নেতা-কর্মীদের, ত্রাণ দুর্নীতি রুখতে কড়া অবস্থান ঘাসফুল শিবিরের

State


নিজস্ব প্রতিবেদন: ত্রাণ বা রেশন নিয়ে দুর্নীতি অভিযোগে সরগরম বিভিন্ন জেলা। চলছে বরখাস্ত, শোকজ। এবার হাওড়ায় শোকজ করা হল ৫ তৃণমূল নেতাকে। মগরাহাটে দলের নির্দেশে ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণের টাকা ফেরত দিলেন স্থানীয় নেতা। কুলতলিতেও ত্রাণ দুর্নীতি প্রকাশ্যে আসায় চাঞ্চল্য।

আরও পড়ুন: আগামী বছর জুন পর্যন্ত বিনামূল্যে রেশন দেবে রাজ্য সরকার, ঘোষণা মমতার

আমপান বিধ্বস্তদের জন্য সরকারি ত্রাণের একাংশ চলে যাচ্ছে দলের নেতা-কর্মীদের কাছে। বঞ্চিত হচ্ছেন প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তরা। শীর্ষ স্তরে অভিযোগ যেতেই কড়া অবস্থান ঘাসফুল শিবিরের। প্রায় প্রতিদিনই কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে বিভিন্ন জেলায়। 

হাওড়ায় ৫ নেতাকে শোকজ
আমপানের ক্ষতিপূরণ বিলি নিয়ে দলের কাছে অভিযোগ জমা পড়ে। খতিয়ে দেখে জেলার পাঁচ নেতাকে শোকজ করল হাওড়া জেলা তৃণমূল কংগ্রেস। কিছুদিন আগে মাকড়দহ ১ নং গ্রাম পঞ্চায়েতে লাঠি জুতো নিয়ে বিক্ষোভ দেখান গ্রামবাসীরা। দলীয় তদন্ত শুরু হয়। 

আরও পড়ুন: সমস্ত রেকর্ড ভেঙে রাজ্যে একদিনে করোনা সংক্রমিত ৬৫২, আক্রান্তের সংখ্যা ১৮,৫৫৯

মগরাহাটে ত্রাণের টাকা ফেরত
অভিযোগ ছিল, দুই ক্ষতিগ্রস্তর ত্রাণের টাকা পকেটে পুড়েছেন স্থানীয় নেতা। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য বরখাস্ত করা হল মগরাহাটের  গোকর্ণী পঞ্চায়েত এলাকার নেতাকে। খবর জানাজানি হতেই বিক্ষোভ দেখিয়েছিল গ্রামবাসীরা। 

কুলতলিতে প্রধানকে ঘিরে বিক্ষোভ
পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে উত্তপ্ত দক্ষিণ ২৪ পরগনার কুলতলি। প্রধানকে পঞ্চায়েত অফিসের মধ্যে তালা মেরে বিক্ষোভ দেখায় গ্রামবাসীরা। দক্ষিণ 24 পরগনা জেলার কুলতলী জালাবেরিয়া টু গ্রাম পঞ্চায়েতে। 





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *