আগামী বছর জুন পর্যন্ত বিনামূল্যে রেশন দেবে রাজ্য সরকার, ঘোষণা মমতার

State


নিজস্ব প্রতিবেদন: করোনার সঙ্গে লড়াইয়ের এই সময়ে আগামী নভেম্বর মাস পর্যন্ত দেশের ৮০ কোটি মানুষকে দেওয়া হবে প্রতি মাসে ৫ কেজি চাল বা গম। জাতির উদ্দেশে ভাষণে আজ এমনটাই ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর তার পরেই রেশন নিয়ে পাল্টা ঘোষণা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

আরও পড়ুন-দেশি ‘টিকটক’ তৈরি করে ফেলল মেদিনীপুরের ছাত্র, উদ্বোধন করলেন দিলীপ ঘোষ

মঙ্গলবার নবান্নে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন, আগামী বছর জুন পর্যন্ত রাজ্যের মানুষকে বিনামূল্যে রেশন দেবে রাজ্য সরকার।  কেন্দ্রকে বলছি বাংলার একশো শতাংশ মানুষকে রেশন দিতে হবে। পাশাপাশি দেশের ১৩০ কোটি মানুষ যাতে রেশন পান তার ব্যবস্থা করতে হবে।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ওনারা নভেম্বর পর্যন্ত বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার কথা বলছেন। আমরা আগামী বছর জুন মাস পর্যন্ত বিনামূল্যে রেশন দেব। ওঁরা আজ বলছেন দেবেন কাল দেবে না হয়তো। কেন্দ্রে যে রেশন দেয় তা রাজ্যের ৬০ শতাংশ মানুষ পায়, ৪০ শতাংশ মানুষ পায় না। এই ডিসক্রিমিনেশন কেন! এটা একশো শতাংশ করতে হবে। পাশাপাশি দেশের ১৩০ কোটি মানুষের রেশনের ব্যবস্থা করতে হবে।

আরও পড়ুন-‘যত বড়ই আইপিএস অফিসার হোন, যাঁরা তৃণমূলের পা চাটছেন, তাঁদের জেলের ভাত খাওয়াব’

এদিন মুখ্যমন্ত্রী আরও ঘোষণা করেন, আনলকের এই সময়ে প্রাতঃভ্রমণের জন্য মানুষকে সকাল সাড়ে পাঁচটা থেকে সাড়ে আটটা পর্যন্ত সময় দেওয়া হল। তবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। বিয়ের অনুষ্ঠানে ৫০ জন পর্যন্ত যোগ দিতে পারবেন। আগে এই সংখ্যা ছিল ২৫। শেষকৃত্য ২৫ জন যোগ দিতে পারবেন।

এদিকে, মমতার ওই ঘোষণার পর সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্ত্তী বলেন, উনি কেন এসব বলছেন! আাগামী বছর জুন মাস পর্যন্ত উনি থাকবেন না। লকডাউনের সময়ে গরিব মানুষের খাবারের দায়িত্ব রাষ্ট্রকে নিতে হবে। এটা আইন। 

প্রধানমন্ত্রীর রেশন নিয়ে ঘোষণা প্রসঙ্গে তৃণমূল নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ভেবেছিলাম দেশের এই আর্থিক মন্দা কাটাতে প্রধানমন্ত্রী নতুন কিছু ঘোষণা করবেন। পেট্রোল-জিজেলের দাম বৃদ্ধিতে মানুষ নাজেহাল, বহু মানুষ মাইনে পাচ্ছেন না। সেসবের কোনও কথাই নেই প্রধানমন্ত্রীর মুখে।





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *